বুধবার | ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | রাত ১:৪৯
শিরোনাম :
বায়ো-ডিগ্রেডেবল প্লাস্টিক প্যাকেজিং পরিবেশবান্ধব সরকারের প্লাস্টিক খাতে ১৫% বছরে প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ৬ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে ফ্লেক্সিবল প্যাকেজিংয়ের বাজার প্রতিবছরের ন্যয় এবারও শুরু হচ্ছে প্লাস্টিক, প্রিন্টিং, প্যাকেজিং (IPF) মেলা। সাফিউস সামি আলমগীর জিতেছেন এফবিসিসিআই বিজনেস এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড প্লাস্টিক ধ্বংসের উপাদান প্রকৃতিতে পাওয়া গেল দূষণরোধে বান্দরবানে এবার প্লাস্টিক বোতলের নৌকা! বাংলাদেশে প্লাস্টিক শিল্পের বিকাশের বিশাল সম্ভাবনা রয়েছে – বেঙ্গল ডিরেক্টর পরিবেশের সুরক্ষায় প্লাস্টিকপণ্য পুনঃব্যবহার বা রিসাইক্লিংয়ে জোর দিচ্ছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগ্রুপ প্রাণ-আরএফএল মান নিয়ন্ত্রনে টেস্টিং মেশিন
এলসি কি? কেন, কোথায় এবং কিভাবে করবেন?

এলসি কি? কেন, কোথায় এবং কিভাবে করবেন?

বর্তমান সারা বিশ্ব একটি বিজনেস প্লাটফরম হয়ে দাড়িয়েছে। প্রায় সকল ধরণের ব্যবসা বানিজ্য এখন আন্তর্জাতিক হয়ে গেছে। ফলে যারা আমদানি-রপ্তানি ব্যবসায় জড়িত তারা জানেন যে, LC (Letter of credit) এলসি কি? এবং এটি কতটা গুরুত্বপূর্ণ? আজকে আমরা আলোচনা করবো, কিভাবে এবং কেন এলসি করে আন্তর্জাতিক ব্যবসায়িক লেনদেন করা হয়?
আপনি যদি বৈশ্বিক বাণিজ্য করতে চান অর্থাৎ বিদেশ থেকে মালামাল ক্রয় করতে বা আমদানি ব্যবসাায় নিজেকে জড়াতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই এলসি করতে হবে। বিদেশে বিক্রেতা বা সাপ্লায়ারের কাছ থেকে ব্যবসায়িক কোনো চুক্তি করার সময়ই এলসি করতে হয়। নিচে এই সম্পর্কে আলোচনা করা হলো।

এলসি LC (Letter of credit) কি?
এলসি হচ্ছে ইংরেজি (Letter of credit) লেটার অব ক্রেডিট এর সংক্ষিপ্ত নাম। ইতালির ভাষায় এটিকে বলা হয় লেত্তেরা ডিক্রেডিটো (Lettera di credito)।

সাধারণত বিদেশ থেকে পন্য বা যন্ত্রাংশ আমদানি করতে গেলে আপনাকে অবশ্যই ব্যাংকের মাধ্যমে এলসি লেনদেন করতে হবে। কেননা সরবরাহকারীরা একদেশ থেকে অন্য দেশে মালামাল পাঠানোর লেনদেন করে থাকে এই এলসির মাধ্যমে। আর এটি একমাত্র বৈধ মাধ্যম।
তরাং এলসি হচ্ছে, আমদানিকারক যখন বৈদেশিক কোন পন্য বা যন্ত্রাংশ আমদানি করতে যান, তখন তাকে ব্যাংকের মাধ্যমে রপ্তানিকারকের (যার কাছ থেকে আমদানি করা হয়) পন্য বা যন্ত্রাংশের মূল্য পরিশোধের নিশ্চয়তা দিতে হয়। এটিই মূূলত LC (Letter of credit) এলসি।
কেন এলসি LC (Letter of credit) করতে হয়?
আমদানি-রপ্তানি বানিজ্য করার ক্ষেত্রে দেখা যায় যে, অধিকাংশ ক্রেতা-বিক্রেতা কেউ কাউকে চিনেন না। যিনি পন্য বিক্রি করবেন তার মূল্য না পাওয়ার কিংবা প্রতারণার ঝুঁকি থাকে। তাই এই ঝুঁকি এড়ানোর জন্য আন্তর্জাতিক ক্রেতারা এই এলসি বা ল্যাটার অব ক্রেডিট এর মাধ্যমে লেনদেন করেন।

আরো সহজভাবে যদি বলি তাহলে এভাবে বলা যায়, বিদেশি বিক্রেতাকে পন্য বা যন্ত্রাংশের মূল্য ব্যাংকের মাধ্যমে পরিশোধ করার নিশ্চয়তা প্রদান করাকে এলসি বলা হয়। আপনি যদি কোন পন্য রপ্তানি করেন, তাহলে যে দেশে পন্য পাঠাবেন সেই দেশের ব্যাংকের মাধ্যমে মূল্য পাওয়ার নিশ্চয়তা নিয়ে পাঠাবেন। আর এই নিশ্চয়তা নেওয়া হয় এলসির মাধ্যমে।
সুতরাং, বুঝতেই পারছেন এলসি কেনো করা হয় এবং এর গুরুত্ব কি। রপ্তানি করার ক্ষেত্রে এলসি নেওয়া মানে পণ্যের মূল্য হাতে পাওয়ার নিশ্চয়তা। আর আমদানি করার ক্ষেত্রে এলসি করা মানে বিক্রেতা বা সরবরাহকারীকে মূল্য পরিশোধের নিশ্চয়তা প্রদান করা।
এলসিতে ব্যাংক কি করে?
আমদানিকারক যখন কোনো বৈদেশিক পণ্য আমদানি করতে চায় তখন আমদানিকারকের পক্ষে তার ব্যাংক, রপ্তানিকারকের পণ্যমূল্য পরিশোধের নিশ্চয়তা স্বরুপ LC (Letter of credit) এলসি ইস্যু করে।

এখানে ব্যাংক আমদানি কারকের পক্ষে রপ্তানি কারকের অনুকূলে এসসি খোলার প্রাথমিক পর্যায়ে আমদানি কারকের নিকট হতে লেটার অব ক্রেডিট এর সম্পূর্ণ মূল্য বা একটি নগদ অর্থ মার্জিন হিসাবে সংরক্ষণ করে।

পরবর্তীতে পণ্য খালাসের সময় আমদানিকারকে অবশিষ্ট অর্থ পরিশোধ করে কিংবা ব্যাংক ঋণের মাধ্যমে পণ্য খালাস করতে হয়। আর ব্যাংক এলসি খোলার জন্য আমদানি কারকের নিকট থেকে কমিশন বা সেবামূূল্য গ্রহণ করে থাকে।

এছাড়াও মার্জিন হিসাবে সংরক্ষিত অর্থও স্বল্প সময়ের জন্য লগ্নি করে সুদ অর্জন করার সুযোগ পেয়ে থাকে। সুতরাং বুঝতে পারছি যে, আমদানি কারক ব্যাংকে এসসি খোলার বিনিময়ে কমিশন হিসাবে নগদ অর্থ প্রদান করে এবং মার্জিন হিসাবে টাকা যোগান দিয়ে আয় করার সুযোগ পায়।
কেনো এলসি করবেন, একটি সহজ উদাহরণ দেই। মনে করুন, আপনি একজন রপ্তানি কারক। কোনো পন্য বিদেশে রপ্তানি করবেন। আপনার ক্রেতার আদেশ অনুযায়ী মাল তৈরি করলেন। মাল তৈরি করার পর, আপনার ক্রেতা যদি মাল নিতে না চায়, অর্থাৎ অসম্মতি জানায় কিংবা মাল নিয়ে যদি দাম দিতে না চায়, তাহলে এর সমাধান হচ্ছে LC (Letter of credit) এলসি।

বাংলায় এটাকে ঋণপত্রও বলা যায়। আপনি যখন এলসির ছাড়পত্র পেয়ে গেলেন, তখন এর মানে হলো আপনার মালের মূল্য পাওয়ার নিশ্চয়তা পেলেন। LC তে ক্রেতা মালের বর্ণনা, পরিমান, মূল্য, ডেলিভারির সময়, মূল্য পরিশোধের শর্ত ইত্যাদি উল্লেখ থাকে।

শেয়ার করুন





Translate Site »